আজ, মঙ্গলবার | ৬ই ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২১শে আগস্ট, ২০১৮ ইং | রাত ৮:২৯                                                                          

ব্রেকিং নিউজ :
জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা জাহিদ আলমের ঈদ শুভেচ্ছা মাগুরায় গরীবের ভিজিএফের চাউল বাজারে ১০ টাকায় বিক্রি ফেসবুকে কটুক্তি ও বিকৃত ছবি পোস্ট করায় মাগুরায় ছাত্রদল কর্মী রুমনকে গ্রেফতার কল্যাণকর বাংলাদেশ বিনির্মাণ এখন আর স্বপ্ন নয়-মাগুরা জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান মাগুরায় কণ্ঠবীথি’র শ্রাবণের শোকগাথা ভাষাসৈনিক হামিদুজ্জামানের ১২ তম মৃত্যু বার্ষিকী ১৯ আগস্ট রবিবার এখনও টানে সেই ‘ম্যাটিনি শো’-অনন্যা হক শালিখায় সভাপতি হতে না পেরে দুই মাদরাসা শিক্ষককে কুপিয়ে জখম মাগুরায় গড়াই নদী থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার মাগুরায় বঙ্গবন্ধুর শাহদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত
মহম্মদপুরের আদিবাসিদের মাঝে বরাদ্দকৃত ট্রাক বাঁশবাগানের জঞ্জাল!

মহম্মদপুরের আদিবাসিদের মাঝে বরাদ্দকৃত ট্রাক বাঁশবাগানের জঞ্জাল!

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মহম্মদপুরে প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প থেকে আদিবাসীদের দেওয়া ট্রাকটির ঠিকানা হয়েছে এখন বাঁশবাগানে। উপজেলা সদরের ব্র্যাক অফিসের সামনে বাঁশবাগানের মধ্যে ১০ লাখ টাকা মূল্যের ট্রাকটি চার বছরেরও বেশি সময় ধরে পড়ে রয়েছে। বিকল অবস্থায় পড়ে থাকায় চুরি হয়ে গেছে গাড়িটির মূল্যবান যন্ত্রাংশ।

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, উপজেলার আদিবাসীদের উন্নয়নে মহম্মদপুর আদিবাসী কল্যাণ সমিতিকে ২০১৩ সালের প্রথম দিকে প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প থেকে ১০ লাখ টাকা অনুদান দেওয়া হয়। এ অর্থ দিয়েই ওই ট্রাকটি ক্রয় করে ভাড়া দেওয়া হয়। এটি সমিতির সভাপতি-সম্পাদক ও সদস্যদের মাধ্যমে পরিচালিত হতে থাকে। কিন্তু নিয়মানুসারে ট্রাকটি থেকে আয়ের একটি অংশ আদিবাসীদের উন্নয়নে ব্যবহার এবং অন্য একটি অংশ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সরকারি অ্যাকাউন্টে জমা দেওয়ার কথা থাকলেও উপার্জিত সেই অর্থ কোথায় আছে তার তথ্য দিতে পারেনি আদিবাসী সংগঠনের কেউ। এ ক্ষেত্রে নীতিমালা উপেক্ষা করে দীর্ঘদিন ট্রাকটি পরিচালনা এবং এর উপার্জিত অর্থ আত্মসাতের বিষয়ে অভিযোগ করেছেন উপেক্ষিত আদিবাসী পরিবারের সদস্যরা।

সরেজমিন সোমবার দুপুরে গিয়ে দেখা যায়, মহম্মদপুর-মাগুরা সড়কের ব্র্যাক অফিসের সামনে বাঁশবাগানের মধ্যে অযতœ-অবহেলায় পড়ে থাকায় রোদ-বৃষ্টি-ঝড়ে ট্রাকটির প্রায় সব অংশ নষ্ট হয়ে গেছে। চুরি হয়ে গেছে এর মূল্যবান অধিকাংশ যন্ত্রপাতি। স্থানীয়দের অভিযোগ, ১০ লাখ টাকা মূল্যের সরকারি একটি সম্পদ বাঁশবাগানের মধ্যে দীর্ঘদিন পড়ে আছে অথচ তা নিয়ে আদিবাসী সংগঠন বা প্রশাসনের কোনো মাথাব্যথা নেই।

মহম্মদপুর আদিবাসী কল্যাণ সমিতির সভাপতি সুনিল কুমার সরকার বলেন, দীর্ঘদিন ট্রাকটি চলার পর ইঞ্জিন বিকল হওয়ায় প্রয়োজনীয় অর্থ না থাকায় ট্রাকটি ব্র্যাক অফিসের সামনে বাঁশতলায় পড়ে আছে। উপার্জিত আয়ের বিষয়ে জানতে চাইলে তা সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক লাল্টু সরকারের কাছে আছে বলে তিনি জানান।

সাধারণ সম্পাদক লাল্টু সরকার বলেন, ট্রাকটির আয়ের কোনো টাকা আমার কাছে নেই। তবে বিকল ট্রাকটি কাজ করিয়ে চালু করার বিষয়ে সংগঠনের মধ্যে আলোচনা হয়েছে।

মহম্মদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান বলেন, মাগুরা জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ট্রাকটি অযত্নে বাঁশবাগানে ফেলে রাখার বিষয়টি সমাজসেবা কর্মকর্তার মাধ্যমে তদন্ত চলছে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin.
IT & Technical Support :BiswaJit