আজ, বুধবার | ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে আগস্ট, ২০১৯ ইং | সন্ধ্যা ৭:২৯                                                                          

শ্রীপুরে ভেজাল কীটনাশক তৈরির কারখানা, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মহিদ আটক

শ্রীপুরে ভেজাল কীটনাশক তৈরির কারখানা, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মহিদ আটক

Exif_JPEG_420

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার চৌগাছি গ্রামের মাকরাজ মৃধার বাড়িতে সোমবার রাতে ভেজাল কীটনাশক তৈরীর কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আটক দ্বারিয়াপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী মহিদুল আলম মহিদকে মঙ্গলবার আদালতে পাঠিয়েছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।

এলাকাবাসী ও পলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই দিন সন্ধ্যায় দারিয়াপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কানন ও এলাকাবাসী দারিয়াপুর হাসপাতাল মোড় থেকে ভ্যান ভর্তি আনুমানিক ১৮০ কেজি ভেজাল কীটনাশক তৈরির কাঁচামালসহ উপজেলার চৌগাছী গ্রামের মাখরাজ ও দারিয়াপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান কাজী মহিদুল আলমকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে মাখরাজ সেখান থেকে চিকিত্সাধীন অবস্থায় পালিয়ে যায়।

রাতে শ্রীপুর থানার এসআই শাহরিয়ার ও শ্রীপুর কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা রূপালী বেগম মাখরাজের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নকল কীটনাশক তৈরির উপকরণ ও নকল প্যাকেটসহ নামি-দামি কোম্পানির মোড়ক, সিনজেনটার ভিরতাকো, অটো ক্রপ কেয়ারের রোভরাল, কেয়ার এগ্রো কেমিক্যালস এর মামবেন ও বায়ারের ৪৫০ প্যাকেট নকল ওষুধসহ ১৯৬ কেজি কাঁচা মাল উদ্ধার করে। যার আনুমানিক মূল্য ২ কোটি ৪২ লক্ষ টাকা বলে কীট নাশক ব্যবসায়ীরা জানিয়েছে।

মঙ্গলবার শ্রীপুর উপজেলা কৃষি অফিসার আতিকুল ইসলাম বাদী হয়ে চৌগাছী গ্রামের মাখরাজ মৃধা, কাজী মহিদুল আলম, জয়নাল মৃধা, মতিন মোল্যা ও মাহফুজা বেগমকে আসামী করে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আটক মহিদুল আলমকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান রাতেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মালামাল জব্দ শেষে জানান, অভিযুক্তদের মধ্যে একজন আটক আছে, বাকীদেরও আটক করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin.
IT & Technical Support :BiswaJit