আজ, বৃহস্পতিবার | ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৯শে অক্টোবর, ২০২০ ইং | দুপুর ২:২৮

ব্রেকিং নিউজ :
মাগুরার দুরাননগরে যুবকদের শ্রম বিক্রির অর্থে দরিদ্র মানুষের ঘরে ত্রাণ মহামারি করোনা : হেসে উঠুক আমাদের ভালবাসার পৃথিবী মাগুরায় করোনা রোগী: ভয় নয়, আরও দায়িত্বশীল হই চাউলিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ত্রাণ নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে সাহেব আলি ছকাতি মাগুরায় ঢাকা থেকে ফেরা আরো এক যুবক করোনা আক্রান্ত গ্রাম লক ডাউন ঘোষণা মাগুরায় ৫ শতাধিক ইমাম মোয়াজ্জিনের মধ্যে এমপি শিখরের নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা প্রদান মাগুরায় আশুলিয়া থেকে ফেরত যুবক করোনায় আক্রান্ত গ্রাম লকডাউন মাগুরায় ইঞ্জিনিয়ার মিরাজের নেতৃত্বে ১৪শত পরিবারের মধ্যে ত্রাণ ও স্যানিটাইজার বিতরণ মাগুরাসহ যশোর অঞ্চলে জনসচেতনায় কাজ করে যাচ্ছে সেনা সদস্যরা করোনা প্রতিরোধে মাগুরা সিভিল সার্জনকে জাসদের ৭টি প্রস্তাব
মাগুরায় তালাক না পেয়ে স্ত্রীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে জখম

মাগুরায় তালাক না পেয়ে স্ত্রীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে জখম

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : তালাক না পেয়ে মাগুরায় রেশমা নামে এক নারীকে কুপিয়ে হাসপাতালে পাঠিয়েছে পাষণ্ড স্বামী। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে কর্তব্যরত চিকিত্সকরা জানিয়েছেন।

রেশমা মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বাবুখালি গ্রামের আবদুর রশিদ শেখের মেয়ে। প্রায় ১২ বছর আগে পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের আবদুল কুদ্দুসের ছেলে সাগরের সঙ্গে তার বিয়ে হয়।

হামলার স্বীকার রেশমার ভাই লিটন জানান, রেশমা তার স্বামীর সঙ্গে ১১ বছরের মেয়েকে নিয়ে ঢাকায় থাকতো। সাগর রিক্সা চালাতো। আর রেশমা গার্মেন্টসে চাকরি করে তাদের সংসার চালাতো। সম্প্রতি দাম্পত্য কলহের জের ধরে রেশমা বাবার বাড়িতে ফিরে আসে। কিন্তু শুক্রবার দুপুরে সাগর মোবাইল ফোনে রেশমাকে ফোন করে তার কাছে তালাক চায়। রাজি না হওয়ায় ফোনে সে অনেক গালমন্দ করে। কিন্তু সন্ধায় বাড়ির লোকজন নামাজের জন্যে বাড়ির বাইরে গেলে সাগর অতর্কিতভাবে বাড়িতে ঢুকে ধারালো বটি দিয়ে রেশমার ওপর হামলা চালায়। বাধা দিতে গেলে রেশমার ভাইয়ের মেয়ে স্মৃতির (১৩) শরীরেও আঘাত লাগে। এ সময় তাদের চিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে গেলে সাগর পালিয়ে যায়।

ঘটনার পর পরিবারের লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় রেশমা এবং স্মৃতিকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। কিন্তু অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাতেই রেশমাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপালাতের কর্তব্যরত চিকিত্সক রতন কুমার সাহা বলেন, রেশমার মাথায় ৩২টি, দুই হাতে ১২টি সেলাই দেয়া হয়েছে। তার বাম হাতের একটি আঙ্গুল কেটে পড়ে গিয়েছে। এছাড়াও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin.
IT & Technical Support :BiswaJit