আজ, সোমবার | ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং | বিকাল ৩:০৭

ব্রেকিং নিউজ :
মাগুরার দুরাননগরে যুবকদের শ্রম বিক্রির অর্থে দরিদ্র মানুষের ঘরে ত্রাণ মহামারি করোনা : হেসে উঠুক আমাদের ভালবাসার পৃথিবী মাগুরায় করোনা রোগী: ভয় নয়, আরও দায়িত্বশীল হই চাউলিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ত্রাণ নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে সাহেব আলি ছকাতি মাগুরায় ঢাকা থেকে ফেরা আরো এক যুবক করোনা আক্রান্ত গ্রাম লক ডাউন ঘোষণা মাগুরায় ৫ শতাধিক ইমাম মোয়াজ্জিনের মধ্যে এমপি শিখরের নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা প্রদান মাগুরায় আশুলিয়া থেকে ফেরত যুবক করোনায় আক্রান্ত গ্রাম লকডাউন মাগুরায় ইঞ্জিনিয়ার মিরাজের নেতৃত্বে ১৪শত পরিবারের মধ্যে ত্রাণ ও স্যানিটাইজার বিতরণ মাগুরাসহ যশোর অঞ্চলে জনসচেতনায় কাজ করে যাচ্ছে সেনা সদস্যরা করোনা প্রতিরোধে মাগুরা সিভিল সার্জনকে জাসদের ৭টি প্রস্তাব
মাগুরায় কনকনে ঠাণ্ডায় জুবুথুবু অবস্থা

মাগুরায় কনকনে ঠাণ্ডায় জুবুথুবু অবস্থা

শাহ আলম : মাগুরায় জেঁকে বসেছে শীত। গত তিনদিনে শীতের সঙ্গে মৃদু বাতাস বইছে। ফলে স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন।

শুক্র থেকে রবিবার পর্যন্ত সূর্যের মুখ দেখা যায়নি তেমনটা। তীব্র শীতে বেশি বিপাকে পড়েছেন সাধারণ নিম্ন আয়ের মানুষ। শীত বেড়ে যাওয়ায় রাস্তায় যানবাহন চলতে কম দেখা গেছে। একটু উষ্ণতা নিয়ে আবার অনেকে খড়কুটো দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে শীত থেকে বাচাঁর চেষ্টা করছে।

দিন মজুর শ্রমিক রেজাউল  জানান, শীতের তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় কাজ করতে পারছি না। বাইরে বের হতে পারছি না। সারাদিন কাজ করে আমার সংসার চলে কিন্তু শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্টে আছি।

রিক্সাচালক কাসেম জানান, দুইদিনে শীত বেশি হওয়ায় ভাড়া কম। লোকজন বাইরে কমবের হচ্ছে। শীত উপেক্ষা করে আমাদের কাজ করতে কষ্ট হচ্ছে।

মাগুরা শিবরামপুরের কৃষক আকামত জানান, হঠাত্ করে শীত জেঁকে বসায় সবজি ক্ষেতে ক্ষতি হচ্ছে। ফুলকফি,পাতা কফি শিম, লাউসহ নানা সবজি চাষাবাদে বাধাগ্রস্থ হচ্ছি আমরা। বিশেষ করে গত দুইদিনে সূর্যের আলো না থাকায় সবজি ফসলের ক্ষতি হচ্ছে।

শিশু বিশেষজ্ঞ জয়ন্ত কুমার কুন্ডু জানান, হঠাত্ তাপমাত্রা নেমে যাওয়ায় শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। দুইদিনে হাসপাতালে অনেক শিশু নিউমোনিয়া নিয়ে ভর্তি হচ্ছে। শীত এভাবে আরো দুইএকদিন থাকলে শিশু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। শীতে শিশুদের বাইরে বেশি না বের হওয়ার জন্য পরামর্শ দিচ্ছি আমরা।

এদিকে, শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় শহরের শীতবস্ত্র দোকানে মানুষের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। শহরের থানার সামনে ফুটপাতের দোকানের মালিক কেরামত জানান, গত দুইদিনে শীত বেশি থাকায় শীতবস্ত্র কিনতে মানুষের ভিড়বেড়েছে । সব শ্রেণি পেশার মানুষ শীত বস্ত্র কিনছে।

শীতবস্ত্র কিনতে আসা গৃহিনী নাজমুন নাহার রত্না জানান, শীত বেড়ে যাওয়ায় শিশুদের শীতবস্ত্র কিনতে এসেছি। দাম হাতের নাগালে থাকায় কিছু বস্ত্র কিনেছি।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin.
IT & Technical Support :BiswaJit